গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় ইলেকট্রনিক গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) পোর্টাল
eGP
মূল পাতা   |   ই-জিপি সম্পর্কিত   |   যোগাযোগ করুন  |  আরএসএস ফিড  |  Language 
বিস্তারিতভাবে খুঁজুন
প্রবেশ Go To Tender ই-দরপত্র APP বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনা Awarded Contracts ই-চুক্তি eCMS null Debarred Tenderers অযোগ্য দরদাতা Reports প্রতিবেদন Offline Tender অফলাইন দরপত্র Awarded Offline Contracts অফলাইন চুক্তি
eGP
ব্যবহারকারী লগ-ইন
পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
সহায়তা
ডাউনলোডস্
রিসোর্সেস
বহিঃ লিঙ্ক
ই-জিপি সিস্টেম ব্যবহারকারীর চুক্তির শর্তাবলী
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় ই-গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) পোর্টাল (http://www.eprocure.gov.bd) সরকারী প্রতিষ্ঠানের (ক্রয়কারী সংস্থা ও ক্রয়কারী অঙ্গ প্রতিষ্ঠান) ক্রয়কার্য সম্পাদনের জন্য পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) দ্বারা তৈরী, গৃহীত এবং পরিচালিত।

ব্যবহারকারীগণ যাতে নিজেদের প্রচেষ্টায় ই-জিপি পদ্ধতির সকল functionalities অন-লাইন মক-আপের মাধ্যমে প্র্যাকটিস্ করে প্রকৃত লেনদেন সম্পর্কে সম্যক ধারণা লাভ করতে পারেন, সে জন্য সিপিটিইউ/আইএমইডি একটি প্রশিক্ষণ সার্ভারও চালু রেখেছে(http://training.eprocure.gov.bd)। এ ট্রেনিং সার্ভারে সংগঠিত কার্যক্রম কোনক্রমেই বাস্তব লেনদেন হিসেবে বিবেচিত হবে না।

ক্রয়কার্যে বাস্তব transaction এর জন্য ব্যবহারকারীকে অবশ্যই জাতীয় ই-গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) পোর্টাল http://www.eprocure.gov.bd বা শুধু http://eprocure.gov.bd ব্যবহার করতে হবে। ই-জিপি সিস্টেমে বর্ণিত ব্যবহারকারীর চুক্তির শর্তাবলী ব্যবহারকারী কর্তৃক পড়া এবং মেনে নেয়ার পরই ব্যবহারকারীর একাউণ্ট তৈরী করা হবে।

কোন ব্যবহারকারী কর্তৃক ই-জিপি পোর্টালে প্রবেশপূর্বক এটি ব্যবহার করা হলে ধরে নেয়া হবে যে, ব্যবহারকারী চুক্তির নিম্নরুপ শর্তাবলী এবং ই-জিপি গাইডলাইন্‌স্ এ প্রদত্ত নির্দেশনা আইনগতভাবে মেনে নিয়েই তা করেছেন।

 
দরপত্রদাতাগণের রেজিস্ট্রেশন অনুরোধ, ই-মেইল যাচাই এবং দলিলপত্রের যথার্থতা নির্ধারণ
  • ই-মেইল যাচাইঃ
    ই-জিপি পদ্ধতিতে প্রবেশের জন্য ব্যবহারকারীর ই-মেইলই ব্যবহারকারীর নাম হিসেবে গণ্য হবে। ই-জিপি পোর্টালের মূল পাতায় "User Registration" বা "নতুন ব্যবহারকারী নিবন্ধন" বাটনে ক্লিক করে প্রাথমিক পরিচিতিমূলক তথ্য দেয়ার পর ব্যবহারকারীর ই-মেইল ঠিকানায় system@eprocure.gov.bd থেকে একটি বার্তা যাবে, যেখানে একটি অনন্য সিকিউরিটি কী এবং দলিলপত্র যাচাই এবং ফি পরিশোধের পদ্ধতিসহ অন্যান্য নির্দেশনা থাকবে। ই-মেইলে পাঠানো এই লিংকে ক্লিক করলে ই-মেইল যাচাইয়ের জন্য ফরমসহ একটি পৃষ্ঠা খুলবে। ই-মেইল, পাসওয়ার্ড এবং প্রাপ্ত সিকিউরিটি কোড যথাস্থানে বসিয়ে ‌'সাবমিট' বাটনে ক্লিক করতে হবে। যদি তথ্যসমূহ সঠিকভাবে বসানো হয়, তাহলে ই-মেইল যাচাইয়ের কাজ স্বয়ংক্রিয় এবং সঠিকভাবে সম্পন্ন হবে।

    এইভাবে ব্যবহারকারীর ই-মেইল একাউণ্ট সঠিকভাবে তৈরী হওয়ার পর আরেকটি ফর্ম দেখানো হবে, যেখানে ব্যবহারকারী নির্দিষ্ট তথ্য সরবরাহ করবেন, দরকারী পরিচিতি দলিলাদীর, অবশ্যই পড়ার যোগ্য, স্ক্যানড কপি (কোম্পানী নিবন্ধন সনদ, আবগারী শুল্ক ও কর পরিশোধের সনদ, ট্রেড লাইসেন্স, অথরাইজ্‌ড্ পার্সন এর জাতীয় পরিচয়পত্র) আপলোড করতে হবে। .
  • দলিলাদি যাচাইকরণঃ
    দরপত্রদাতা, আবেদনকারী এবং পরামর্শক তাদের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য নিবন্ধনের সময় স্ক্যান করে আপলোড করা দলিলাদি প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়ন করে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, শের-ই-বাংলা নগর, ব্লক-১২, ফ্লোর-২ এ অবস্থিত সিপিটিইউ/আইএমইডির রেজিস্ট্রেশন ডেস্কে, পোস্ট বা কুরিয়ারের মাধ্যমে, প্রাক-যাচাই এর জন্য পাঠাবেন। এই যাচাই প্রক্রিয়া অনধিক দু'সপ্তাহের মধ্যে সমাপ্ত হবে।

    দলিলপত্র ভেরিফিকেশনের পর দরদাতা, আবেদনকারী, এবং পরামর্শক নিবন্ধন সম্পর্কিত কনফার্মেশন সম্পর্কে তার ই-মেইল ঠিকানায় একটি বার্তা পাবেন। একই সংগে, তার নির্দিষ্ট কার্য সম্পাদনের জন্য ই-জিপি সিস্টেম ব্যবহারকারী হিসেবে তার ড্যাশবোর্ডে বার্তা পাবেন। ক্রয়কারী সংস্থা, উন্নয়ন সহযোগী, বিলগ্রহণকারী সহযোগী নেটওয়ার্ক (ব্যাংক ও অন্যান্য) এবং মিডিয়া, সিপিটিইউ/আইএমইডি, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে দাপ্তরিক যোগাযোগের মাধ্যমে নিবন্ধন কাজ সম্পন্ন করতে পারবে।
  • গোপনীয়তা রক্ষাঃ
    ব্যবহারকারী নিজের পাসওয়ার্ডের গোপনীয়তা রক্ষার জন্য এবং তাদের একাউণ্ট (ই-মেইল আইডি, পাসওয়ার্ড) ব্যবহার করে সম্পাদিত সকল কার্যক্রমের জন্য সম্পূর্ণভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন। ই-জিপি সিস্টেম, ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করে না; কিন্তু ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর হিসেবে পাসওয়ার্ডের অপরিবর্তনযোগ্য হ্যাস ভেলু সংরক্ষণ করে। ব্যবহারকারীগণ তাদের পাসওয়ার্ডের যে কোন অননুমোদিত ব্যবহার বা সম্ভাব্য নিরাপত্তা বিঘ্ন সংক্রান্ত যে কোন তথ্য সিপিটিইউকে (admin@eprocure.gov.bd) জানাবেন। ব্যবহারকারীর অনুপস্থিতিতে অথবা প্রতিবার কম্পিউটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে, ব্যবহারকারীগণ অবশ্যই যথাযথভাবে লগআউট করবেন।

    ব্যবহারকারীর একাউণ্ট এবং পাসওয়ার্ড জানাজানি হলে বা ক্ষতি হলে বা অন্য কোন সমস্যা হলে সিপিটিইউ এর জন্য দায়ী থাকবে না। তবে ই-জিপি সিস্টেমে পাসওয়ার্ডসহ ব্যবহারকারীর বিবরণ সংশোধন ও পরিবর্তন করা যাবে। কিন্তু ব্যবহারকারী তার ই-মেইল আইডি এবং নিবন্ধনের সময় প্রতিষ্ঠানের যে নাম ব্যবহার করেছিলেন, সে নাম পরিবর্তন করতে পারবেন না।
  • ইণ্টারনেট ব্রাউজার এবং ব্যবহারকারীর কম্পিউটারের যথোপযুক্ততাঃ
    নিরাপদে ই-জিপি সিস্টেমে প্রবেশ করতে হলে ব্যবহারকারীকে সঠিক ওয়েব ব্রাউজার এবং তৎসংশ্লিষ্ট নিরাপত্তা সেটিং ব্যবহার করতে হবে। নতুন নতুন ব্রাউজারের দ্রুত আবিস্কার এবং নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থার ঘনঘন পরিবর্তনের ফলে নতুন কম্পোনেণ্ট কনফিউগারেশন আসা মাত্র ব্যবহারকারীকে তা আপডেট এবং কম্পিউটারে স্থাপন করতে হবে। ই-জিপি পদ্ধতির বর্তমান সংস্করণ ইণ্টারনেট এক্সপ্লোরার ৮ বা তার পরবর্তী ভার্সন এবং মজিলা ফায়ারফক্স ৩.৬ অথবা ততোধিকে সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে।

    ই-জিপি সিস্টেমে দলিলপত্র পরিচালন, আপলোড এবং ডাউনলোড করার জন্য ব্যবহারকারী, কম্পিউটার সিস্টেমের জন্য দরকারী হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার এবং প্রয়োজনীয় ব্যণ্ডউইথসহ নিরবচ্ছিন্ন ইণ্টারনেট সংযোগের জন্য দায়ী থাকবেন।
  • প্রযোজ্য সময়ঃ
    ই-জিপি সিস্টেম, ক্রয় কার্যক্রম প্রক্রিয়াকরণের জন্য ই-জিপি ডাটা সেণ্টারের সময়কে reference হিসাবে ব্রবহার করবে। ই-জিপি ডাটা সেন্টার সিপিটিইউ/আইএমইডি, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, ঢাকা, বাংলাদেশে অবস্থিত।
  • সর্বস্বত্ব অধিকারঃ
    গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) কর্তৃক ই-জিপি ওয়েব পোর্টাল তৈরী এবং পরিচালিত। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিপিটিইউ/আইএমইডি তথ্য এবং ই-জিপি পোর্টালের অবস্থিত সোর্স কোডসহ কোমলসম্ভার সূচী এবং সকল সরঞ্জামের (materials) স্বর্বসত্বের অধিকারী। এছাড়া, সকল পরিচালন পদ্ধতি (অপারেটিং সিস্টেম), সরঞ্জাম এবং অন্যান্য কোমলসম্ভার বা সূচি (Program), যা ই-জিপি পোর্টালের কাজকর্মের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে, তা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিপিটিইউ, আইএমইডি কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত বা লাইসেন্সকৃত।
  • স্বয়ংক্রিয় সংকেত এবং ব্যবহারকারীর ড্যাশবোর্ডের ইনবক্সঃ
    ব্যবহারকারী তাদের ড্যাশবোর্ডের অগ্রাধিকার শাখায় পছন্দমত কনফিউগারেশন করে স্বয়ংক্রিয় সতর্ক বার্তা পাওয়ার বিষয়টি বাছাই করতে পারবেন। প্রত্যেক স্বয়ংক্রিয় সতর্ক বার্তা ব্যবহারকারীর পছন্দনীয় মাধ্যম (যেমন: ই-মেইল বা এসএমএস) ব্যবহার করে পাঠানো হবে এবং ব্যবহারকারী by default তার ই-জিপি ড্যাশবোর্ডে তা দেখতে পারবেন। যদি ব্যবহারকারী তৃতীয় পক্ষের ত্রুটির বা সিস্টেমের ত্রুটি বা অন্য কোন কারণে স্বয়ংক্রিয় বার্তা না পান, তাহলে তাকে তার ইনবক্সে এসব বার্তা/বিজ্ঞপ্তি এবং যোগাযোগের বিষয়গুলো খোঁজ করে দেখতে হবে।
  • নিবন্ধন ফিঃ
    প্রত্যেক দরপত্রদাতা, আবেদনকারী এবং পরামর্শককে নিবন্ধনের জন্য বার্ষিক ৫,০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা ফি প্রদান করতে হবে এবং তা বছরভিত্তিক নবায়ন করতে হবে। প্রত্যেক বছরের নবায়নের জন্য ২,০০০/- (দুই হাজার) টাকা ফি প্রদান করতে হবে। আন্তর্জাতিক দরপত্রদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শকগণের জন্য নিবন্ধন ফি ১০০ (একশ) মার্কিন ডলার এবং নবায়ন ফি ৩০ (ত্রিশ) মার্কিন ডলার। ব্যবহারকারীকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে, ই-জিপি সিস্টেমের সদস্য পদের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই সিপিটিইউ কর্তৃক নির্ধারিত ব্যাংক একাউণ্টে ফি জমা দেওয়া হয়েছে।

    ব্যবহারকারীকে নিবন্ধন, ফি ও নির্দিষ্ট সময়মত নবায়ন, অতিরিক্ত ধারণ ক্ষমতা ব্যবহার, লেনদেন, ই-জিপি সিস্টেমের নির্দিষ্ট ফিচার ব্যবহার, কার্যকর থাকা, রক্ষণাবেক্ষণ এবং ব্যবস্থাপনাসহ বিভিন্ন ধরণের সেবার জন্য ফি প্রদান থেকে অব্যাহতি দেয়া যেতে পারে। ই-জিপি সিস্টেম দীর্ঘ মেয়াদী চলার জন্য যে কোন ফি/চার্জ কমানো বা মওকুফ করার কর্তৃত্ব নিয়ন্ত্রণ করবে।

    ফি পরিবর্তন, মওকুফ, প্রভৃতি বিষয়ে সিপিটিইউ/আইএমইডি বিজ্ঞপ্তি প্রদান করবে।
  • দরপত্র জমাঃ
    দলিলপত্র আপলোডের জন্য তৃতীয় পক্ষের সাথে লেনদেন, যেমন- দরপত্রের জন্য নিরাপত্তা জামানত তৈরী এবং ব্যাংকের মাধ্যমে তা জমা দেওয়া, দরপত্রের সম্পূর্ণতা পরীক্ষা এবং সর্বশেষে নির্দিষ্ট দরপত্রের জন্য দলিলপত্র জমা দেওয়ার সময় পরিকল্পনার জন্য দরদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শক দায়ী থাকবেন। চূড়ান্তভাবে জমা দেওয়ার আগে দরদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শক দলিলপত্র আপলোড, অনলাইনে প্রয়োজনীয় ছক পূরণ করা, দলিলপত্র সংশোধন ও যাচাইসহ অন্যান্য কার্যক্রম পৃথক পৃথকভাবে সম্পূর্ণ করতে পারবেন। কিন্তু অসম্পূর্ণ দরপত্র ই-জিপি সিস্টেমে জমা দেওয়া যাবে না।
  • লেনদেন প্রক্রিয়াঃ
    ই-পেমেণ্ট গেটওয়ে না হওয়া পর্যন্ত অনুমোদিত সিডিউল ব্যাংকের মাধ্যমে, প্রচলিত পদ্ধতিতে, ই-জিপি সিস্টেম ই-পেমেণ্ট সেবা গ্রহণ করবে। তফসিলি ব্যাংক ও অন্যান্য আর্থিক সেবা প্রদানকারীগণ, ই-জিপি সিস্টেমে একান্তভাবে নিজস্ব এবং নিরাপদ ড্যাশবোর্ড-এ প্রবেশ করতে পারবে, যেখান থেকে সেবা প্রদানকারীগণ গণখাতে ক্রয় সংক্রান্ত আর্থিক লেনদেন, যথাঃ ফি ও চার্জ গ্রহণ, নিরাপত্তা জামানত গ্রহণ, নিরাপত্তা জামানত সংরক্ষণে রাখা, এবং অন্যান্য ফি সংগ্রহ সেবা প্রদানে সমর্থ হবে।

    দরপত্রদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শকগণ ই-জিপি সিস্টেমে নির্দিষ্ট কাজের জন্য, চাহিদা অনুযায়ী, নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ ব্যংকে জমা দিবে। ব্যাংকসমূহ ই-জিপি সিস্টেমের নির্দিষ্ট কোন সেবা বা লেনদেনের জন্য চার্জ ও ফি সংগ্রহ করে তাৎক্ষণিকভাব ব্যাংক-ব্যবহারকারীর মাধ্যমে লেনদেনের তথ্যাদি ই-জিপি সিস্টেমে আপডেট করবে এবং পরবর্তীতে সংগৃহীত অর্থ সিপিটিইউ কর্তৃক খোলা একাউণ্টে জমা করবে এবং

    যখনই কোন ব্যাংক গ্যারান্টি এবং জামানত (দরপত্র জামানত, কার্য-সম্পাদন জামানত ইত্যাদি) ব্যাংক কর্তৃক প্রদান করা হবে, তা তাৎক্ষণিকভাবে ই-জিপি সিস্টেমে আপডেট করতে হবে।

    যখন কোন ক্রয়কারী অথবা সিপিটিইউ কোন ব্যাংককে কোন গ্যারান্টি বা জামানত অবমুক্ত করে তা নির্দিষ্ট ক্রয়কারী বা সিপিটিইউ-এর একাউন্টে জমা করতে বলবে, ব্যাংক লেনদেন সম্পন্ন করে এবং লেনদেনের তথ্যাদি ই-জিপি সিস্টেমে আপডেট করবে।

    ই-জিপি সিস্টেমে ইউজার-এর মাধ্যমে ব্যাংকের বিধি মোতাবেক ব্যাংকিং লেনদেনের জন্য সিপিটিইউ দায়ী থাকবে না।

    আন্তর্জাতিক দরপত্রদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শক-এর ক্ষেত্রে, সিপিটিইউ কর্তৃক খোলা ব্যাংক একাউন্টে ওয়্যার ট্রান্সফার বা অন্য কোন মাধ্যমে নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে উল্লেখ করে লেনদেন সম্পন্ন করতে হবে। আন্তর্জাতিক দরপত্রদাতা/আবেদনকারী/পরামর্শকগণকে তাদের লেনদেনের তথ্যাদি ই-জিপি সিস্টেমে আপডেট করার জন্য ই-জিপি অনলাইন পেমেন্ট নেটওয়ার্ক এর ব্যাংকসমূহের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। লেনদেন সম্পন্ন করা, যোগাযোগ করা বা মূদ্রা বিনিময় করার জন্য কোন চার্জ প্রযোজ্য হলে তা দরপত্রদাতা/আবেদনকারী/ পরামর্শকগণকে বহন করতে হবে। আন্তর্জাতিক ব্যাংক কর্তৃক ব্যাংক গ্যারান্টি এবং জামানত প্রদানের ক্ষেত্রে, তা অবশ্যই বাংলাদেশে তার সহযোগী ব্যাংক কর্তৃক সমর্থিত হতে হবে এবং উক্ত বাংলাদেশী ব্যাংককে বাংলাদেশ ই-জিপি অনলাইন পেমেন্ট নেটওয়ার্ক-এর সদস্য হতে হবে। আন্তর্জাতিক পেমেন্ট গেটওয়ে ই-জিপি সিস্টেমের সাথে সমন্বিত হলে, আন্তর্জাতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে, সিপিটিইউ কর্তৃক খোলা মাস্টার ব্যাংক একাউন্টে তা পাঠিয়ে দেওয়া বা জমা করা যেতে পারে।
  • ভাইরাস এবং ডকুমেন্টের শুদ্ধতাঃ
    অনলাইন ইলেক্ট্রনিক রেকর্ড এবং যে সকল ফাইলে দরপত্র/আবেদনপত্র/প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে, তা যদি বিকৃত হয় বা ভাইরাসযুক্ত হয় বা যে কোন কারণে পড়ার অযোগ্য হয়, তবে সেই দরপত্র বিবেচনাযোগ্য হবে না। বাংলাদেশের প্রচলিত আইন মেনে ডকুমেন্টের শুদ্ধতা, পরিপূর্ণতা এবং সত্যতা নিশ্চিত করার সম্পূর্ণ দায়িত্ব দরপত্রদাতা/ আবেদনকারী/পরামর্শকগণের (জাতীয় বা আন্তর্জাতিক)।.
  • বহিস্থ ওয়েব সূত্রসমূহঃ
    সিপিটিইউ/আইএমইডি ই-জিপি পোর্টাল এর সাথে লিংক করা তৃতীয় পক্ষের বহিঃ ওয়েব সূত্রসমূহের প্রাপ্যতা বা তথ্যের গ্রহণযোগ্যতার বিষয়ে কোন দায়িত্ব নিবে না। কারণ ঐ সকল ওয়েব সাইটের উপর সিপিটিইউ/আইএমইডি-এর কোন কর্তৃত্ব নেই।
  • পরিচালনা, রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবস্থাপনাঃ
    সিপিটিইউ/আইএমইডি ই-জিপি ডাটা সেন্টার, ই-জিপি সিস্টেম এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সেবাসমূহ যে কোন তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে আউটসোর্সিং ভিত্তিতে পরিচালনা, রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবস্থাপনার অধিকার সংরক্ষণ করে। ই-জিপি সিস্টেম ব্যবহারকারী, এ ধরণের আউট সোর্সড প্রতিষ্ঠান/কোম্পানীর সাথে সম্পাদিত যে কোন চুক্তি মেনে চলতে বাধ্য থাকবেন।
  • আইনের বাধ্যবাধকতাঃ
    ই-জিপি পোর্টাল ব্যবহারের চুক্তির শর্তাবলীর ক্ষেত্রে বাংলাদেশের প্রচলিত আইন প্রযোজ্য এবং বাংলাদেশের আইন দ্বারা এই পোর্টাল পরিচালিত হবে। যে সকল ব্যবহারকারী ই-জিপি সিস্টেম ব্যবহারের উপরোল্লিখিত শর্তাবলী ভঙ্গ করবেন বাংলাদেশ সরকার এবং সিপিটিইউ তাদের বিরুদ্ধে যে কোন আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • ই-জিপি সিস্টেমের মধ্যে এবং ব্যবহারের শর্তাবলীতে পরিবর্তনঃ
    সিপিটিইউ/আইএমইডি কোনরুপ পূর্ব বিজ্ঞপ্তি প্রচার ব্যতীতই, যে কোন সময়, ই-জিপি পোর্টালের যে কোন ফাংশনের, ব্যবহারকারীর ইণ্টারফেস (user interface)-এর বিষয়বস্ত্তর এবং অন্য বিষয়সমূহের পরিমার্জন, পরিবর্ধন, বিয়োজন অথবা পরিবর্তনের অধিকার সংরক্ষণ করে। আপডেটেড ই-জিপি পোর্টাল ব্যবহার এবং শর্তাবলী ব্যবহারে ব্যবহারকারী দায়বদ্ধ থাকবেন।
     
২ জুন ২০১১ তারিখে প্রকাশিত
মূল পাতা  |  ই-জিপি সম্পর্কিত |  যোগাযোগ করুন |  আরএসএস ফিড  |  শর্তাবলী |  Service Level  |  প্রতিপাদন ও গোপনীয়তার নীতি  |  New Features
Best viewed in 1024 x 768 and above resolution. Browsers Tested & Certified by CPTU: Internet Explorer 8.x, 9.x, 10.x, 11.x and Mozila Firefox 13x, 14x, 29.x, 52.x, 53.x, 62.x, 70.x, 71.x, 72.x, 77.x, 86.x and Google Chrome 79.x
Copyright © 2011 Central Procurement Technical Unit (CPTU). All Rights Reserved.
IMED, Ministry of Planning, Government of the People's Republic of Bangladesh